০৯:১২ পিএম | টাঙ্গাইল, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
প্রতিষ্ঠাতা মরহুম আব্দুল ওয়াহেদ মিয়া

শত বছরের ঐতিহ্যবাহী ‘জামাইমেলা’ চলছে

স্টাফ রিপোর্টার | টাঙ্গাইল২৪.কম | শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৯ | |
, টাঙ্গাইল :

টাঙ্গাইলে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী জামাই মেলা চলছে।

বৃহস্পতিবার  শুরু হয়েছে তিনদিনব্যাপী এ মেলা। চলবে আগামীকাল শনিবার পর্যন্ত। 

যুগ যুগ ধরে চলে আসা সংস্কৃতির সাথে মিশে আছে বাঙালির প্রাণ। তারই ধারাবাহিকতায় শত বছর ধরে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার রসুলপুর গ্রামে অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে ‘জামাইমেলা’। 

এ মেলাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে। এ মেলায় দূর দূরান্ত থেকে জামাইয়েরা আসেন। মেলাকে সামনে রেখে ছোট ছেলেমেয়েদের জন্য আয়োজন করা হয় নানা বিনোদন ব্যবস্থার। 

মেলায় থাকে ছোট-বড়  প্রচুর স্টল, বিভিন্ন ধরনের খেলনা, কসমেটিকস, খাবারের দোকান। ঐতিহ্যবাহী এই মেলায় ব্যবসা করতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এসেছেন ব্যবসায়ীরা। 

প্রতিবছর ১১, ১২ ও ১৩ বৈশাখ (সনাতন পঞ্জিকা অনুসারে) টাঙ্গাইলের সদর উপজেলার রসুলপুর বাছিরন নেছা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজন করা হয় এই মেলার। 

তিনদিনে রসলপুরসহ আশেপাশের অন্তত ৩০টি গ্রামের লাখো মানুষের সমাগম ঘটে এই মেলায়। 

প্রশ্ন জাগতে পারে জামাইমেলা নাম হলো কেন? এর উত্তরে রসুলপুরের অনেকেই বলেন, এই মেলাকে কেন্দ্র করে এলাকার সব মেয়ের বর শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে আসেন, তারাই মেলার মূল আকর্ষণÑ এ কারণেই মেলাটি জামাইমেলা হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।  

বৃহস্পতিবার ঘুরে দেখা যায়, বিভিন্ন দোকানীরা তাদের জিনিসপত্র নিয়ে বসে আসে, অপরদিকে ক্রেতারা তা কিনছেন। এছাড়া মেলায় মিষ্টি জাতীয় দোকানের সংখ্যা বেশি লক্ষ করা গেছে।  মেলায় বিভিন্ন রকমের জিনিসপত্র উঠেছে। মেলায় টাঙ্গাইল জেলায় বিভিন্ন জেলার লোকজনকে দেখা যায়। বড়দের পাশাপাশি ছোট ছেলে মেয়রা এই মেলা উপভোগ করছেন।  

এ ব্যাপারে রসুলপুরের বাসিন্দা কথাসাহিত্যিক ও সাংবাদিক রাশেদ রহমান বলেন, ‘এই মেলার উৎপত্তি কবে সেটা কেউ জানে না। যুগ যুগ ধরে এই মেলা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এই এলাকার মানুষের কাছে ঈদ আর পূজাপার্বনের থেকেও এই মেলা বেশি উৎসবের। মেলাটি বৈশাখী মেলা হিসেবে ব্রিটিশ আমলে শুরু হলেও এখন এটি জামাইমেলা হিসেবে পরিচিত। মেলাকে সামনে রেখে রসুলপুর ও এর আশেপাশের বিবাহিত মেয়েরা তাদের বরকে নিয়ে বাবার বাড়ি চলে আসেন। আর মেয়ের জামাইকে মেলা উপলক্ষে বরণ করে নেবার জন্য শ্বশুড়-শাশুড়িরা বেশ আগে থেকেই নেন নানা প্রস্তুতি। মেলার দিন জামাইয়ের হাতে কিছু টাকা তুলে দেন শাশুড়িরা। আর সেই টাকার সাথে আরও টাকা যোগ করে জামাইরা মেলা থেকে চিড়া, মুড়ি, আকড়ি, মিষ্টি, জিলাপিসহ বিভিন্ন জিনিস কিনেন।’  

মেলায় কথা হল মো. আজিজ নামের এক বৃদ্ধের সাথে। তিনি বলেন, ‘জন্মের পর থেকেই আমি এ মেলা দেখে আসছি। এটি জামাই মেলা হিসেবে অনেক পরিচিত। শ্বশুড়রা এ মেলা উপলক্ষে জামাইদেরকে টাকা দেয়, আর জামাইয়ার এর সাথে কিছু টাকা যোগ করে মেলা থেকে বিভিন্ন কিছু কিনে। আমার একটি মেয়ে রয়েছে, তাকে বিয়ে দিয়েছি। মেয়ের জামাইকে আমি দাওয়াত দেয়া হয়েছে। তিনি এখানে এসেছেন’  

রসুলপুর গ্রামের হামিদ মিয়া নামের এক জামাই বলেন, আমি প্রতিবছরই এই মেলায় এসেছি। মেলায় এসে আমার খুব ভালো লাগছে। শ্বশুড় বাড়ির লোকজন আমাদেরকে দাওয়াত দেন। তখন আমরা আসি।    


কথা হয় সিরাজগঞ্জ থেকে আসা মানিক মিয়া নামের এক আকড়ি ব্যবসায়ীর সাথে। তিনি বলেন, ‘আমি এই মেলায় প্রায় ১৫ বছর ধরে আসছি। এখানে বিক্রি করে আমি লাভবান হই। এই মেলাটি জামাই মেলা হিসেবে পরিচিত। এবার প্রায় ৫০ মন আকড়ি নিয়ে এসেছি। আশা করছি লাভবান হবো। গতবছর মেলায় ১ লাখ টাকা মতো বিক্রি হয়েছিল। আর এতে প্রায় ২৫ হাজার টাকাও মতো লাভবান হয়েছিলাম।’  

অজিত দাশ নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, আমি বিভিন্ন স্থানে মেলায় যাই। তবে বিগত ১২ বছর ধরে রসুলপুরের জামাইমেলায় আসছি। আসার সংসারের যাবতীয়  খরচ এর উপর নির্ভর করে। মেলার কমিটির লোকজন আমাদের বিভিন্নভাবে সহযোগীতা করেছেন।

এ ব্যাপারে রসুলপুরের সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন নবপ্রজন্ম সাহিত্য গোষ্ঠীর সভাপতি মারুফ রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মোবাইদুল ইসলাম বলেন, ‘আমাদের এই মেলা ঐতিয্যে পরিণত হয়েছে। এই মেলাকে কেন্দ্র করে দারুণ একটা প্রাণচাঞ্চলের সৃষ্টি হয়। আমরা সংগঠনের পক্ষ থেকে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করি। এ কাজ করে আমরা প্রচুর আনন্দ পাই।’  

এ ব্যাপারে মেলার আহবায়ক ফজলুল হক বলেন, ‘আমাদের এ মেলায় ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৩ শতাধীক দোকান বসেছে। এই মেলা টাঙ্গাইল জেলার মধ্য ঐতিহ্যবাহী মেলা। এই মেলায় শুরু হওয়ার আগেই গ্রামের জামাই এবং বউয়েরা আসেন। তারা বিভিন্নভাবে মেলা উপভোগ করে থাকেন। এটি জামাই মেলা হিসেবে পরিচিত।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

নাগরপুরে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস পালিত সন্ধান চাই মাভাবিপ্রবিতে ”মোবাইল গেমস এবং অ্যাপ্লিকেশন উদ্ভাবনী ধা টাঙ্গাইলে নাবালিকা বিয়ে করায় প্রবাসীর জরিমানা ধনবাড়ীতে তিন দিনব্যাপী ফলদ বৃক্ষ মেলা  গৃহবধু মন্টি ঘোষ হত্যার বিচারের দাবিতে টাঙ্গাইলে মানববন নাগরপুরে ইউপি উপ নির্বাচনে এ কে এম কামরুজ্জামান মনি বিজ মির্জাপুরে ১০ টাকা কেজি চাল বিক্রি শুরু মির্জাপুরে নৌকা ডুবে নিখোঁজের ২৮ ঘন্টা পর কলেজ ছাত্রীর ভূঞাপুরে পুরাতন মন্দিরের জায়গা উদ্ধার করলো প্রশাসন ভূঞাপুরে ডিস লাইনের কট্রোলরুমে আগুন; গ্রেফতার হয়নি কেউ সাংবাদিকদের সাথে নবাগত ইউএনও’র মতবিনিময় নাগরপুরে ৩ ইউপি’র উপ-নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহন মাভাবিপ্রবিতে তৃতীয় শ্রেণি কর্মচারী সমিতির নব-নির্বাচিত কালিহাতীতে জামায়াতের ৭ মহিলা কর্মীসহ গ্রেফতার ১০

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

নির্মান ও ডিজাইন : মঈনুল ইসলাম, পাওয়ার বাই: জিরোওয়ানবিডি