০৪:৫২ এএম | টাঙ্গাইল, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯
প্রতিষ্ঠাতা মরহুম আব্দুল ওয়াহেদ মিয়া

স্থানীয়দের মধ্যে চাপা ক্ষোভ

আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে গোরস্থানের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

ডেস্ক রিপোর্ট | টাঙ্গাইল২৪.কম | সোমবার, ২ জুলাই ২০১৮ | |
ফাইল ছবি
, টাঙ্গাইল :

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের এ আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে গোরস্তানের নামে বরাদ্ধ টিআর এর এক লাখ টাকা আতœসাত করার অভিযোগ উঠেছে। গোরস্তানের টাকা আতœসাতের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধর্মপ্রান মুসুল­ী ও স্থানীয়দের মধ্যে বিরাজ করছে চাপা ক্ষোভ ও উত্তেজনা।

ঘটনাটি ঘটেছে মির্জাপুর উপজেলার ২ নং জামুর্কি ইউনিয়নের পাকুল্যা পুর্বপাড়া গ্রামের গোরস্থান নিয়ে।

মির্জাপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ২০১৭-২০১৮ অর্থ বছরে স্থানীয় সংসদ সদস্যের সার্বিক সহযোগিতায় পাকুল্যা পূর্বপাড়া গোরস্থানের উন্নয়ন বাবদ এক লাখ টাকার টিআর বরাদ্ধ প্রদান করা হয়। ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটির মাধ্যমে দুই কিস্তিতে এই অনুদানের টাকা উত্তোলন করা হয়। কমিটির সদস্যরা হলেন- প্রকল্প কমিটির সভাপতি ২নং জামুর্কি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক এ্যাডভোকেট মোঃ ইলিয়াজ আহমেদ, মো. কুদ্দুছ মিয়া, লুৎফর রহমান, মজনু মিয়া ও আলী আকবর। কমিটি টাকা উত্তোলন করলেও কোন কাজই করা হয়নি বলে অভিযোগ উঠে।

পাকুল্যা গ্রামের সাবেক মেম্বার নুরুল ইসলাম পিয়ারা, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু মতিন ফাক্কন, মো. লেবু মিয়া ডগা ও মো. হুমায়ুন কবীরসহ অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, ২নং জামুর্কি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক এ্যাডভোকেট মো. ইলিয়াজ আহমেদ ও তার সহযোগিরা প্রকল্প কমিটি গঠন করে গোরস্তানের নামে বরাদ্ধকৃত এক লাখ টাকা উত্তোলন করে। কিন্তু কোন কাজ না করেই পুরো টাকা আতœসাত করেছে। ঘটনা জানাজানি হলে গ্রামের ধর্মপ্রান মুসুল­ীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। 

এ ঘটনার প্রতিবাদে এলাকাবাসি গত শুক্রবার প্রতিবাদ সমাবেশও করেছে বলে জানা গেছে। এসময় তারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে গোরস্তানের নামে বরাদ্ধকৃত এক লাখ টাকার উন্নয়ন কাজ করার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের কাছে জোর অনুরোধ জানায়।

এ ব্যপারে প্রকল্প কমিটির সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক এ্যাডভোকেট মো. ইলিয়াজ আহমেদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পাকুল্যা পুর্বপাড়া গোরস্থানের কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে আলোচনা করে গোরস্তানের নামে একটি প্রকল্প দেখানো হয়েছিল। গোরস্থানের নামে বরাদ্দ পাওয়া প্রকল্পের টাকায় উফুল্কী, কাটরা ও সাটিয়াচড়াসহ কয়েকটি গ্রামের কাঁচা রাস্তার মাটি ফেলাসহ উন্নয়নমূলক কাজ করা হয়েছে। কিছু টাকা গোরস্থানের উন্নয়নের জন্য দেওয়া হবে। যারা গোরস্থানের টাকা আতœসাতের অভিযোগ করেছেন তাদের অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলেও তিনি দাবী করেন।

এ ব্যপারে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অফিস সহকারী মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, পাকুল্যা পূর্বপাড়া গোরস্থানের নামে বরাদ্ধকৃত এক লাখ টাকা প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি উত্তোলন করে নিয়ে গেছে।

এছাড়া উপজেলার মহেড়া, জামুর্কি, ফতেপুর, বানাইল, আনাইতারা, ওয়ার্শি, ভাদগ্রাম, ভাওড়া, বহুরিয়া, লতিফপুর, গোড়াই, আজগানা, তরফপুর ও বাঁশতৈল ইউনিয়নে নামে বেনামে বিভিন্ন প্রকল্পের ভুয়া নাম দেখিয়ে কাজ না করেই টিআর এর লক্ষ লক্ষ টাকা হরিলুটের ঘটনা ঘটেছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সূত্র ঃ দেশতথ্যবাংলাডটকম।

আপনার মন্তব্য লিখুন...

মাদক মামলায় যুবলীগ নেতা কারাগারে গীতা পাঠ প্রতিযোগিতা এসবি লিংক এর নতুন বাস স্ট্যান্ড উদ্বোধন ২ হাজার পিস ইয়াবাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলাকারীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মি ২১আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরনে আলোচনা সভা ও দোয়া বিদ্যালয়ের মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেল ৩৩ রাউন্ড গুলি  সর্ষের মধ্যে ভূত না, সর্ষই থাকা উচিত : দুদককে হাইকোর্ট বৃদ্ধের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার মাদক ব্যবসায়ী মোজাম্মেল হক রুমান গ্রেফতার ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে মাভাবিপ্রবিতে বিক্ষোভ ১১ তদন্ত কর্মকর্তার তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্ট বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক জেল-হাজতে ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার জাহালম কাণ্ডের সব তদন্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের মামল

© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

নির্মান ও ডিজাইন : মঈনুল ইসলাম, পাওয়ার বাই: জিরোওয়ানবিডি